শিরোনাম
প্রচ্ছদ / জাতীয় / জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শীর্ষনেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, দেশের মালিক কোনও মহারানি-মহারাজা নন, এই দেশের মালিক জনগণ। জনগণের দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার জন্য আপসহীনভাবে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন চালিয়ে যাব। তিনি বলেন, আমরা দেশের মালিক হিসেবে ঐক্যবদ্ধ থাকব। ঐক্যবদ্ধ হয়ে সিদ্ধান্ত নেব। সুষ্ঠু নির্বাচন হতে হবে। ভোটকেন্দ্রে পাহারা দিতে হবে। মঙ্গলবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন ড. কামাল। তিনি বলেন, সরকারের কথার এক পয়সার দামও নেই। সেটা গত ৫ বছরে প্রমাণিত হয়েছে। সংবিধান ১৬ আনা উপেক্ষা করা হয়েছে। kamal ড. কামাল হোসেন বলেন, যেভাবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী হয়রানি করছে, তা অপরাধ, মহা-অপরাধ। হয়রানি বন্ধ করতে হবে। স্বাধীন বাংলাদেশে এটা চলতে দেয়া যায় না। তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের বাঁচার উপায় হলো জনগণকে শক্তভাবে দাঁড়িয়ে অন্যায়ের প্রতিবাদ করা। দেশের মালিক আপনারা। এজন্য আপনাদের শক্তভাবে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’ কামাল বলেন, এটা কোনো ব্যক্তির রাষ্ট্র নয়। সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে হবে। এটায় আমাদের দাবি। এ সময় তিনি বলেন, ‘আমাদের অধিকার আমরা আদায় করব। জনগণ আজ জেগেছে, এ জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শীর্ষনেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, দেশের মালিক কোনও মহারানি-মহারাজা নন, এই দেশের মালিক জনগণ। জনগণের দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার জন্য আপসহীনভাবে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন চালিয়ে যাব। তিনি বলেন, আমরা দেশের মালিক হিসেবে ঐক্যবদ্ধ থাকব। ঐক্যবদ্ধ হয়ে সিদ্ধান্ত নেব। সুষ্ঠু নির্বাচন হতে হবে। ভোটকেন্দ্রে পাহারা দিতে হবে। মঙ্গলবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন ড. কামাল। তিনি বলেন, সরকারের কথার এক পয়সার দামও নেই। সেটা গত ৫ বছরে প্রমাণিত হয়েছে। সংবিধান ১৬ আনা উপেক্ষা করা হয়েছে। kamal ড. কামাল হোসেন বলেন, যেভাবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী হয়রানি করছে, তা অপরাধ, মহা-অপরাধ। হয়রানি বন্ধ করতে হবে। স্বাধীন বাংলাদেশে এটা চলতে দেয়া যায় না। তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের বাঁচার উপায় হলো জনগণকে শক্তভাবে দাঁড়িয়ে অন্যায়ের প্রতিবাদ করা। দেশের মালিক আপনারা। এজন্য আপনাদের শক্তভাবে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’ কামাল বলেন, এটা কোনো ব্যক্তির রাষ্ট্র নয়। সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে হবে। এটায় আমাদের দাবি। এ সময় তিনি বলেন, ‘আমাদের অধিকার আমরা আদায় করব। জনগণ আজ জেগেছে, এ জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শীর্ষনেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, দেশের মালিক কোনও মহারানি-মহারাজা নন, এই দেশের মালিক জনগণ। জনগণের দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার জন্য আপসহীনভাবে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন চালিয়ে যাব।

তিনি বলেন, আমরা দেশের মালিক হিসেবে ঐক্যবদ্ধ থাকব। ঐক্যবদ্ধ হয়ে সিদ্ধান্ত নেব। সুষ্ঠু নির্বাচন হতে হবে। ভোটকেন্দ্রে পাহারা দিতে হবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন ড. কামাল।

তিনি বলেন, সরকারের কথার এক পয়সার দামও নেই। সেটা গত ৫ বছরে প্রমাণিত হয়েছে। সংবিধান ১৬ আনা উপেক্ষা করা হয়েছে।

ড. কামাল হোসেন বলেন, যেভাবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী হয়রানি করছে, তা অপরাধ, মহা-অপরাধ। হয়রানি বন্ধ করতে হবে। স্বাধীন বাংলাদেশে এটা চলতে দেয়া যায় না।

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের বাঁচার উপায় হলো জনগণকে শক্তভাবে দাঁড়িয়ে অন্যায়ের প্রতিবাদ করা। দেশের মালিক আপনারা। এজন্য আপনাদের শক্তভাবে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

কামাল বলেন, এটা কোনো ব্যক্তির রাষ্ট্র নয়। সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে হবে। এটায় আমাদের দাবি।

এ সময় তিনি বলেন, ‘আমাদের অধিকার আমরা আদায় করব। জনগণ আজ জেগেছে, এ জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

About akdesk1

Check Also

ধান কিনতে পারছেন না উত্তরাঞ্চলের ফড়িয়ারা

ধান কিনতে পারছে না উত্তরাঞ্চলের ফড়িয়ারা। হাট-বাজার না বসার কারণে হাটেও ধান উঠছে না। আবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *