প্রচ্ছদ / মিডিয়া কর্নার / মুকসুদপুর সংবাদের সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি আবু এম ফারুকের ইন্তেকাল

মুকসুদপুর সংবাদের সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি আবু এম ফারুকের ইন্তেকাল

সরদার মজিবুর রহমান (গোপালগঞ্জ):
মুকসুদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলির সদস্য, বিশিষ্ট ব্যবসায়ি, সমাজসেবক ও মুকসুদপুর সংবাদের সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি আবু এম ফারুক (আমেরিকান ফারুক) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহে……রাজেউন)। বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার সময় ঢাকার পপুলার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭৮ বছর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী ১ ছেলে ৩ মেয়ে এবং অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে জান। তিনি মহামারী করোনা ভাইরাস পজেটিভ হয়ে ঢাকা পপুলার হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন।
তাঁর মৃত্যুতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। শোক বার্তায় তিনি জানান, আমাদের একজন ত্যাগী নেতা, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার ঘনিষ্টজন ও আওয়ামী লীগের একজন অত্যন্ত ঘনিষ্ঠজন ছিলেন। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছি এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি। মুকসুদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে শোক প্রকাশ করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড. আতিকুর রহমান মিয়া, সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম শিকদার। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মুকসুদপুর উপজেলা শাখার উপদেষ্টা মন্ডলীর ১নং সদস্য ছিলেন।
মুকসুদপুর সংবাদ সম্পাদক হায়দার হোসেন জানান, ১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৪৭ সালে গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার বাঁশবাড়িয়া ইউনিয়নের পারইহাটি গ্রামে ঐতিহ্যবাহী তালুকদার পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মরহুম আফসার উদ্দীন তালুকদার। শৈশবে তিনি স্থানীয় বিদ্যালয়ে পড়াশোনা, প্ের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক পাশ করে শেষ করে আমেরিকায় পাড়ি জমান। সমাজ সেবায় ছিলো তার অনবদ্য ভুমিকা। ৭৫ এর পট পরিবর্তনে তিনি আওয়ামী লীগ এর অনেক নেতাকর্মীর আশ্রয়দাতা ছিলেন। ১৯৮১ সালে বঙ্গবন্ধু কন্য দেশে ফিরে আসলে তার সাথে তিনিও আসেন। ১৯৮৬ সালে গোপালগঞ্জ ১ আসন থেকে শেখ হাসিনা নির্বাচন করলে তিনি তার অন্যতম প্রচারক ছিলেন। ওই সময় কয়েকজন ফারুক শেখ হাসিনার কাছাকাছি থাকায় শেখ হাসিনা তাকে আমেরিকান ফারুক ভাই বলে ডাকতেন। সেই থেকে তিনি আমেরিকান ফারুক নামে পরিচিত। তিনি আরও জানান, মুকসুদপুর সংবাদেও প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে দীর্ঘ ২১ বছর ধরে সম্পাদক মন্ডলী সভাপতির দায়িত্ব পালন করে মুকসুদপুর সংবাদ পরিবারের অভিভাবকের দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া আবু এম ফারুক উজানী কলেজের প্রতিষ্ঠাতা, উজানী বিইউকে উচ্চ বিদ্যালয়ের দীর্ঘদিনের সভাপতির দায়িত্ব পালন ছাড়াও এলাকার অনেক সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন। তার মরদেহ ঢাকা থেকে তার প্রিয়জন্মস্থানে পিতার কবরের পাশে সমাহিত করা হবে।

About jne

Check Also

অ্যামচ্যাম ফ্রন্টলাইন জার্নালিজম অ্যাওয়ার্ড প্রদানের ঘোষণা

করোনা মহামারীর কঠিন সময়ে সম্মুখসারিতে দায়িত্ব পালনকারী গণমাধ্যমকর্মীদেরকে ‘অ্যামচ্যাম ফ্রন্টলাইন জার্নালিজম অ্যাওয়ার্ড’ প্রদানের ঘোষণা দিয়েছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *