প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / ২০২৪ সালেই যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে শীর্ষ অর্থনীতির দেশ হবে চীন

২০২৪ সালেই যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে শীর্ষ অর্থনীতির দেশ হবে চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে ২০২৪ সালের মধ্যেই বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশ হবে চীন। বিশ্বব্যাংক আর আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল দীর্ঘদিন ধরেই পূর্বাভাস দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রকে টেক্কা দেবে চীন। এবার বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম বলছে, ২০২৪ সালেই যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশ হবে চীন। যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান হবে দ্বিতীয়, ভারত থাকবে তৃতীয় অবস্থানে।
ইউরোপের পাওয়ার হাউজ হিসেবে পরিচিত দেশগুলোর অর্থনৈতিক অবস্থা ২০২৪ সালেও খুব একটা ইতিবাচক অবস্থায় থাকবে না। এসময়টায় এশিয়ার ৫টি দেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি শীর্ষ অবস্থানে থাকবে। এরমধ্যে পঞ্চম অবস্থানে থাকবে ইন্দোনেশিয়া। জাপানের অবস্থান থাকবে চতুর্থ আর রাশিয়া থাকবে ষষ্ঠ অবস্থানে। দুই ঋণদাতা সংস্থার পূর্বাভাসের ওপর ভিত্তি করে এমন তথ্য দিয়েছে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম। সংস্থাটির প্রতিবেদন বলছে, ‌১৯৯০ সাল থেকেই অর্থনৈতিক দিক দিয়ে স্থিতিশীল অবস্থানে আছে চীন। বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম বলছে, চীন জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে শক্তিশালী ভূমিকা রাখছে। ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া ও ফিলিপিন্স শ্রমশক্তি তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এশিয়ার মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিগুলোও বিশ্ববাজারে স্বকীয় স্থান করে নিয়েছে। তবে এশিয়ার উন্নয়নশীল অর্থনীতির বাধাঁ হতে পারে গ্রাম ও শহর অঞ্চলের উন্নয়নের পার্থক্য, পরিবেশ বিপর্যয়, সুশাসনের অভাব।
১৯৯২ সাল থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতির দেশ যুক্তরাষ্ট্র। ১৯৯২ সালে চীনের অবস্থান ছিলো দশম। ২০২৪ সালে যা শীর্ষে আসার কথা রয়েছে। ২০২৪ সালে ভারত পৌঁছাতে পারে তৃতীয় অবস্থানে। যেখানে ১৯৯২ সাল কিংবা ২০০৮ সালের তালিকায় শীর্ষ ১০ দেশের স্থানে ভারতের নাম ছিলোই না। ২০২৪ সালে শীর্ষ দশের তালিকায় ওপরের দিকে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া বাকি সব দেশই থাকবে এশিয়ার। তালিকার নিচের অবস্থানে থাকবে ইউরোপের দেশগুলো। অষ্টম অবস্থানে থাকবে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল, এমনটাই পূর্বাভাস বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের।

About jne

Check Also

দক্ষিণ চীন সাগরে প্রতিবেশীদের সঙ্গে বিরূপ সম্পর্কে চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক আন্তর্জাতিক সমুদ্র আইন নিয়ে চীনের অবজ্ঞা দক্ষিণ চীন সাগরের প্রতিবেশী দেশগুলির সাথে দেশটির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *