প্রচ্ছদ / ব্যাংক ও বীমা / দেখে নিন মহামারিতে ৮ প্রতিষ্ঠানের ব্যবসার চিত্র

দেখে নিন মহামারিতে ৮ প্রতিষ্ঠানের ব্যবসার চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক
বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস বাংলাদেশে প্রথম আঘাত হানে গত ৮ মার্চ। করোনার প্রকোপ ঠেকাতে গত ২৬ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত টানা ৬৬ দিন সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। ফলে চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ব্যবসা-বাণিজ্যে সব থেকে বড় ব্যাঘাত ঘটে। ব্যবসা-বাণিজ্যে স্থবিরতা নেমে আসায় এপ্রিল-জুন এই তিন মাসে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের মুনাফায় ধাক্কা লেগেছে। অবশ্য ব্যতিক্রম কিছু দৃশ্যও আছে। এই মহামারির মধ্যে কিছু প্রতিষ্ঠানের মুনাফা উল্টো বেড়েছে। কোম্পানিগুলোর প্রকাশিত প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে আসছে। নিয়ম অনুযায়ী, পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোকে প্রতি তিন মাস পরপর তাদের ব্যবসার আয়-ব্যয়ের তথ্য প্রকাশ করতে হয়। তারই আলোকে এখন তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলো এপ্রিল-জুন প্রান্তিকের ব্যবসার আয়-ব্যয়ের তথ্য প্রকাশ করছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মাধ্যমে মঙ্গলবার প্রকাশ করা ৮ প্রতিষ্ঠানের মুনাফার তথ্য নিচে তুলে ধরা হলো।

গ্লাক্সোস্মিথক্লাইন

সম্প্রতি ইউনিলিভারের কাছে বিক্রি হওয়া এই বহুজাতিক কোম্পানিটি চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ১১ টাকা ৪০ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ১১ টাকা ১৯ পয়সা।

দ্বিতীয় প্রান্তিকে মুনাফা বাড়ায় ছয় মাসের হিসাবেও কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ২৬ টাকা ৩৭ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২২ টাকা ২৫ পয়সা।

এমটিবি

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড (এমটিবি) চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি মুনাফা করে ৭৯ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ৬৮ পয়সা।

দ্বিতীয় প্রান্তিকে মুনাফা বাড়ায় ছয় মাসের হিসাবে কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ১ টাকা ৫৫ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ২৮ পয়সা।

নিটল ইন্স্যুরেন্স

চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করে ১ টাকা ২১ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ৭১ পয়সা।
দ্বিতীয় প্রান্তিকে মুনাফায় বড় উন্নতি হওয়ায় ছয় মাসের হিসাবে কোম্পানিটির মুনাফা বেড়েছে। চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ১ টাকা ৫৫ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৫১ পয়সা।

ইসলামী ব্যাংক

চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করে ১ টাকা ৫০ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ১ টাকা ৬৪ পয়সা।

দ্বিতীয় প্রান্তিকে মুনাফা কমায় ছয় মাসের হিসাবেও কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে। চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ১ টাকা ৯৪ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২ টাকা ৫ পয়সা।

মার্কেন্টাইল ইন্স্যুরেন্স

কোম্পানিটি চলতি বছরের জানুয়ারি-মার্চ প্রান্তিকের তথ্য প্রকাশ করেছে। এ তথ্য অনুযায়ী, জানুয়ারি-মার্চ সময়ে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করে ৩৩ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৬২ পয়সা।

প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স

চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করে ৪৬ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৫২ পয়সা। দ্বিতীয় প্রান্তিকের মতো ছয় মাসের হিসাবেও কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে। চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ৩২ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৮৭ পয়সা।

ফিনিক্স ফাইন্যান্স

চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করে ১৭ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২৩ পয়সা। দ্বিতীয় প্রান্তিকে মুনাফা কমায় ছয় মাসের হিসাবেও কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে। চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ৫৬ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৬৩ পয়সা।

মার্কেন্টাইল ব্যাংক

চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করে ৫০ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ২৪ পয়সা। দ্বিতীয় প্রান্তিকে মুনাফা কমায় ছয় মাসের হিসাবেও কোম্পানিটির মুনাফা আগের বছরের তুলনায় কমেছে। চলতি বছরের জানুয়ারি-জুন সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ১ টাকা ৭ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৭৯ পয়সা।

About jne

Check Also

বেসিক ব্যাংকের শতবর্ষ সঞ্চয় প্রকল্প চালু

নিজস্ব প্রতিবেদক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আকর্ষণীয় মুনাফায় বিশেষ আমানত প্রকল্প ‘শতবর্ষ সঞ্চয় প্রকল্প’ চালু করেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *