শিরোনাম
প্রচ্ছদ / ব্যাংক ও বীমা / করোনা পরিস্থিতিতে বেসরকারী ব্যাংকের বেতন না কমানোর সুপারিশ করেছে ABOB

করোনা পরিস্থিতিতে বেসরকারী ব্যাংকের বেতন না কমানোর সুপারিশ করেছে ABOB

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে অর্থনৈতিক মন্দার কারণ দেখিয়ে বেসরকারী ব্যাংক এ কর্মরত কর্মকর্তাদের বেতন ভাতাসহ অন্যান্য আর্থিক সুবিধা কমানোর সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন না করার ব্যাপারে গভর্নর বরাবর চিঠি দিয়েছে অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংক অফিসার্স বাংলাদেশ (ABOB)।
সংগঠনের প্যাডে সভাপতি মহিউদ্দীন হাওলাদার ও সেক্রেটারি আনিচ মুন্সী স্বাক্ষরিত চিঠিটি পাঠকদের উদ্দেশ্যে হুবহুু তুলে ধরা হলো।

প্রিয় মহোদয়,
বাংলাদেশ ব্যাংকে গভর্নর হিসেবে আপনার কর্মকালীন সময়ে ব্যাংক কর্মকর্তাদের কল্যাণে ইতোমধ্যে নানা পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংক অফিসার্স বাংলাদেশ (ABOB) এর পক্ষ থেকে আপনাকে জানাই শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন । প্রিয় মহোদয়, আপনি ও আমরা সবাই অবগত আছি যে, সমগ্র জাতি তথা গোটা বিশ্ব আজ কভিড-১৯ দ্বারা আক্রান্ত। আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার দিন দিন বেড়েই চলছে। আক্রান্ত ও মৃত্যুর মিছিলে পিছিয়ে নেই এদেশের দেশ প্রেমিক ব্যাংকাররা। কোভিড-১৯ পরিসংখ্যাণে প্রতিদিনই যোগ হচ্ছে ব্যাংকারদের নাম। জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে ব্যাংকাররা পরিবার পরিজনের মায়া ত্যাগ করে যখন সম্মোক যোদ্ধা হয়ে ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে দেশ ও দশের সেবায় আত্মনিয়োগ করেছেন, অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে প্রাণোন্তর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ঠিক তখন বেতন ভাতাসহ অন্যান্য আর্থিক সুবিধা কমানোর সিদ্ধান্ত তাদের জীবনকে গভীর উদ্বেগ আর উৎকন্ঠায় ফেলে দিয়েছে।

হে প্রিয় অভিভাবক, আপনার দূরদর্শী দিকনির্দেশনা ও ব্যাংকারদের সততা, মেধা আর শ্রমের সুন্দর সমন্বয়ে বেসরকারী বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো আজ দেশ ও দেশের বাইরে গৌরবময় সফলতা এবং সুনাম অর্জন করেছে। বিক্ষিপ্ত কিছু ঘটনা ছাড়া ব্যাংক খাতের একটি সোনালী অতীত রয়েছে। কঠিন দিনগুলোতে সেবা দেয়া ব্যাংকারদের বেতন কমানোর ভাবনা ব্যাংক পাড়া ও ব্যাংক কর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরী করেছে। এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হলে দেশের সামগ্রিক ব্যাংকিং ব্যবস্থাই হুমকির মুখে পড়তে পারে। দেশের ব্যাংক খাত এর মত বড় একটি খাত যদি কর্মীদের বেতন ভাতাসহ অন্যান্য আর্থিক সুবিধা কমানোর সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করে তাহলে পুরো বেসরকারী খাতে এ প্রবণতা শুরু হয়ে যাবে। এতে সামাজিক অস্থিরতা দেখা দিবে। তাই এখনই এ ব্যাপারে আপনার তথা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের হস্তক্ষেপ দরকার।

হে প্রিয় তত্ত্বাবধায়ক, আমরা মনেকরি, চলমান কোভিড-১৯ কে কেন্দ্র করে বেসরকারী ব্যাংক এ কর্মরত কর্মকর্তাদের বেতন ভাতাসহ অন্যান্য আর্থিক সুবিধা কমানোর সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন কর্মকর্তাদের নিরাশা করবে। হতাশা উদ্রেককারী এই সিদ্ধান্তে ব্যাংকারদের মনোবল ভেঙ্গে পড়বে ফলে ব্যাংকাররা চিন্তা-তেনায় ও কর্মে নিস্ক্রিয় হয়ে পড়বে যা দৈনন্দিন ব্যাংকিং সেবা ও কার্যক্রম পরিচালনায় ব্যাঘাত ঘটবে এবং দেশের ব্যাংকিং ব্যাবস্থাপনায় সুদূরপ্রসারী নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। সুতরাং আমরা মনে করি, সকল কর্মকর্তাকে অনুপ্রাণিত করেই যে কোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করা ও সফলতা বয়ে আনা সম্ভব।

আপনার মাধ্যমে ব্যাংকগুলোকে করোনাকালে সুশাসন প্রতিষ্ঠা ও আরো মানবিক হতে এবং বেতন ভাতা হ্রাস বা কর্মী ছাটাই নয় বরং অপ্রয়োজনীয় অন্যান্য ব্যায় কমানোর আহ্বান করছি। কর্মীদের অতীত অবদানের কথা ভেবে বিষয়টা মানবিকভাবে দেখবার আহ্বান জানাচ্ছি।

অতএব, করোনাকালে বেসরকারী বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো কর্মকর্তাদের বেতন ভাতাসহ অন্যান্য আর্থিক সুবিধা কমানোর সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন থেকে যেন বিরত থাকে সেই মর্মে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক বেসরকারী বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদানের জন্য অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংক অফিসার্স বাংলাদেশ (ABOB) এর পক্ষ থেকে আপনাকে সবিনয় অনুরোধ করছি।

About jne

Check Also

২০১৬ থেকে ব্যাংকারদের জন্য স্বতন্ত্র হাসপাতাল নির্মানের দাবী জানিয়ে আসছে অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংক অফিসার্স বাংলাদেশ

ব্যাংকারদের জন্য একটি স্বতন্ত্র হাসপাতাল হোক এটা সকল ব্যাংকারদের প্রাণের দাবী। অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংক অফিসার্স …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *