প্রচ্ছদ / ব্যাবসা-বাণিজ্য / করোনার প্রভাবে তেলের দর ১৮ বছরে সর্বনিম্ন

করোনার প্রভাবে তেলের দর ১৮ বছরে সর্বনিম্ন

করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারি আকার ধারণ করায় সারা বিশ্বে জ্বালানি তেলের চাহিদা অনেক কমে গেছে। ফলে ব্যারেল প্রতি অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দর সোমবার নেমে আসে ২২ দশমিক ৫৮ ডলারে। ২০০২ সালের নভেম্বরের পর এটাই সবচেয়ে কম দাম। হিসেব করলে দেখা যাবে যে- গত ১৮ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন দর ছিল এটি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট (ডাব্লুটিআই) তেলের দর ২০ ডলারের নিচে নেমে এসেছে। বিবিসির সংবাদ অনুযায়ী, গত এক মাসে বিশ্বব্যাপী জ্বালানি তেলের দর অর্ধেকের বেশি কমেছে। এই মাসের শুরুতে তেলের দাম নিয়ে সৌদি আরব এবং রাশিয়ার টানাপড়েনে বড়ো দরপতন হয়।

বিশ্লেষকরা বলছেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নেওয়া নানা উদ্যোগের সঙ্গে যানবাহন এবং বিমান চলাচল সীমিত হয়েছে। তাছাড়া বিশ্বের দেশগুলো ‘লকডাউন’ ছাড়াও মানুষের চলাচল সীমিত করেছে। অনেক কারখানার উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই তেলের চাহিদা কমেছে ব্যাপকহারে।

তবে জ্বালানি চাহিদা কমে গেছে বিশ্বের বড়ো অর্থনীতির দেশগুলো তেল মজুত করে রাখে। কিন্তু বর্তমান অবস্থায় মজুত কেন্দ্রগুলোও পূর্ণ হয়ে গেছে।

About arthonitee

Check Also

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ক্ষতি সাড়ে ১৩ হাজার কোটি টাকা

করোনাভাইরাস সংক্রমণের বড় ধাক্কা লেগেছে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে। রপ্তানি, হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার, ই-কমার্স ও স্টার্টআপ খাত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *