প্রচ্ছদ / প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর / আইসোলেশনে মারা যাওয়া নারীর দাফন, কোয়ারেন্টাইনে পুরো পরিবার

আইসোলেশনে মারা যাওয়া নারীর দাফন, কোয়ারেন্টাইনে পুরো পরিবার

সিলেট প্রতিনিধি
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা অবস্থায় মারা যাওয়া যুক্তরাজ্যফেরত নারীর দাফন কঠোর নিরাপত্তায় সম্পন্ন হয়েছে। রোববার দুপুর দেড়টার দিকে নগরের মানিকপিরের টিলাস্থ সিটি করপোরেশনের কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। দাফন কার্যক্রম চলাকালে সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মণ্ডলসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় মৃত নারীর পরিবারের একজন সদস্যও উপস্থিত ছিলেন। দাফনকাজ চলাকালে ওই এলাকায় জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে মরদেহের কাছে কাউকে ঘেঁষতে দেয়া হয়নি।
এদিকে সিলেটে আইসোলেশনে থাকা যুক্তরাজ্যফেরত নারীর মৃত্যুর পর তার পুরো পরিবারকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। রোববার (২২ মার্চ) দুপুরে জেলা প্রশাসনের একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নগরের শামীমাবাদ এলাকার ওই বাসায় গিয়ে তাদের এ নির্দেশনা দেন। সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ আবুল কালাম নির্দেশনার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সিলেটে করোনাভাইরাস সন্দেহে মারা যাওয়া নারীর পরিবারের সবাইকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এর আগে রোববার রাত সাড়ে ৩টার দিকে যুক্তরাজ্যফেরত এই নারী নগরের সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে আইসোলেশনে মারা যান। ৬১ বছর বয়স্ক ওই নারী গত ৪ মার্চ যুক্তরাজ্য থেকে সিলেট ফেরেন।
এরপর ১০ দিন ধরে জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন তিনি। গত ২০ মার্চ শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে ভর্তি হন ওই নারী। অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তাকে আইসোলেশনে রাখেন চিকিৎসক। রোববার আইইডিসিআরের প্রতিনিধি দল সিলেটে এসে তার রক্তের নমুনা সংগ্রহ করার কথা রয়েছে। করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত কি-না তা নিশ্চিত হতে দাফনের আগে মৃত ব্যক্তির মুখের লালার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরপর তাকে দাফন করা হয়েছে।

About arthonitee

Check Also

মাগুরায় গাছ কর্তনের অভিযোগ দিয়ে বেকায়দায় কৃষক

রোপণকৃত গাছ কর্তন করার অভিযোগ থানায় দিয়ে বেকায়দায় পড়েছেন কৃষক ফুলমিয়া মৃধা। এখন গাছ নয়, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *