প্রচ্ছদ / রাজনীতি / সকলের মতামত নিয়ে ২০২০ সালে সর্বোত্তম মানের হজ উপহার দেওয়া হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সকলের মতামত নিয়ে ২০২০ সালে সর্বোত্তম মানের হজ উপহার দেওয়া হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সকলের মতামত নিয়ে ২০২০ সালে সর্বোত্তম মানের হজ ব্যবস্থাপনা উপহার দেওয়া হবে। হজ ব্যবস্থাপনার ছোটখাটো যেসব ত্রুটি রয়েছে সেগুলো কাটিয়ে উঠে আগামী বছর আমরা একটি সর্বোত্তম মানের হজ উপহার দিতে চাই। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব এডভোকেট শেখ মোঃ আব্দুল্লাহ ঢাকার অফিসার্স ক্লাবে হজ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালা ২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

হজ সম্পর্কিত আলোচনায় বিভিন্নজনের কাছ থেকে আমরা যেসব ত্রুটির কথা শুনে থাকি,তার অন্যতম হলো- হজ ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত আইনের অভাব, ঢাকা এবং জেদ্দা হজ অফিসের পুরাতন জনবল কাঠামো, সৌদি আরবে অপর্যাপ্ত বাংলাদেশি মেডিকেল সেন্টার, বেসরকারি হজ এজেন্সির হাজি সংগ্রহে অসম ও অস্বচ্ছ প্রতিযোগিতা, বেসরকারি হজযাত্রীর ক্ষেত্রে মধ্যস্বত্বভোগীদের হস্তক্ষেপ ও দৌরাত্ম্য সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনার অন্তরায়। এসব সীমাবদ্ধতাগুলো উত্তরণে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নেব।

কর্মশালায় বলা হয়েছে, হজ সংক্রান্ত সৌদি সরকারের কিছু নিয়ম হজযাত্রীর অনুকূলে নয়। আর ক্ষেত্রবিশেষ হজ কার্যক্রমের সঙ্গে নিয়োজিত সৌদি আরবের বিভিন্ন সংস্থার অসহযোগিতার দরুণ হজযাত্রীদের বেশ কষ্ট শিকার করতে হয়। এ সব সমস্যার সমাধানে আমরা সৌদি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়গুলোর সুষ্ঠু সমাধান করব।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী তার বক্তব্যে আরও বলেন, ২০১৯ সালে হজ ব্যবস্থাপনার সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে নিয়ে আমরা একটি চমৎকার হজ ব্যবস্থাপনা উপহার দিতে সক্ষম হয়েছি। তবে সুন্দরের শেষ নেই, হজ ব্যবস্থাপনা আরো উন্নত করার লক্ষ্যে আজকের এই আয়োজন। এই কর্মশালার সকল অংশীজনের মূল্যবান মতামত নিয়ে আমরা আমাদের কর্মসূচি গ্রহণ করব।

ধর্ম সচিব মো. আনিছুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য সৈয়দ নজিবুল বাশার মাইজভান্ডারি এমপি, মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরি এমপি, বেগম রত্না আহমেদ এমপি,  ও হজ এজেন্সিস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব)-এর সভাপতি এম শাহাদত হোসাইন তসলিম।

২০২০ সালের হজ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম নির্বিঘ্ন করতে এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে হজ ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব এবিএম আমিন উল্লাহ নুরী। প্রেজেন্টেশনে ২০১৯ সালের হজ সংক্রান্ত নানা তথ্য উপস্থাপন করা হয়।

কর্মশালায় হজ এজেন্সির মালিক, আলেম-উলামা, সাংবাদিকসহ হজ ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত বিভিন্ন স্তরের ব্যক্তিরা অংশ নিয়েছেন।

About arthonitee

Check Also

১৫ আগস্ট – ৩ নভেম্বর হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের খলনায়ক ছিলেন জিয়াউর রহমান – তথ্য প্রতিমন্ত্রী।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট থেকে শুরু করে ৩ নভেম্বর জেলহত্যা এবং ৭ নভেম্বর মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যাকাণ্ডের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *