প্রচ্ছদ / প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর / সিরিয়াল বিড়ম্বনায় পটুয়াখালী চিকিৎসা সেবা

সিরিয়াল বিড়ম্বনায় পটুয়াখালী চিকিৎসা সেবা

সুনান বিন মাহাবুব (পটুয়াখালী): পটুয়াখালী চিকিৎসা সেবায় এখন আতংকের নাম সিরিয়াল রাখা। ৩,৪ দিন আগেও পটুয়াখালীর বিভিন্ন ক্লিনিকের নামী দামী ডাক্তারদের সিরিয়াল রেখে সুষ্ঠ চিকিৎসা সেবা পাচ্ছেন না রোগীরা। বতর্মানে পটুয়াখালীর সকল প্রাইভেট ক্লিনিকে ডাঃ চেম্বারের ব্যবস্থা করায় সরকারী হাসপাতালের বেশিরভাগ ডাক্তাররা বিকাল ৪ টার পর ঐ সকল ক্লিনিকের নিজস্ব চেম্বারে রোগী দেখেন। তাই রোগীরা সিরিয়াল কেটে রাখে যাতে দ্রæত চিকিৎসা সেবা নিতে পারে। কিন্তু বর্তমানে এসকল চেম্বারের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে যারা থাকেন তারা ডাক্তারের রোগী দেখার ক্ষমতার বাহিরে ৩,৪ গুন বেশি রোগীর নাম সিরিয়াল খাতায় লিখে রাখেন। ফলে একজন ডাক্তারের রাত ২-৩ টা পর্যন্ত রোগী দেখতে হচ্ছে। বিভিন্ন ক্লিনিকের রোগীদের সাথে কথা বলে জানা যায় যে, পটুয়াখালীর শহরে চিকিৎসা সেবা নিতে আসে দুর দুরান্তের রোগীরা। গলাচিপা, কলাপাড়া, দশমিনা, উপজেলার বেশির ভাগ রোগী ডাঃ দেখাতে পটুয়াখালী আসেন। তারা পটুয়াখালী এসে সিরিয়াল রাখে। সিরিয়াল অনেক শেষে হলে রাতে ডাঃ দেখিয়ে বাড়ী ফিরে যেতে পারে না। ফলে সারা রাত ক্লিনিকে অবস্থান করতে হয়। এমনকি বিভিন্ন ক্লিনিকে রাত ১২ টার পর দেখা যায় রোগীদের চাপের কারনে হিমশিম খাচ্ছে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ। ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে বলেন, ডাঃ চেম্বারের দায়িত্বরত কর্মচারিরা অধিক সিরিয়াল কেটে রাখায় সকল রোগীকে দেখতে রাত অনেক হয়ে যায়। একজন ডাক্তার রোগী দেখতে পারে সর্বোচ্চ ৫০ জন। সেখানে প্রতিদিন সিরিয়াল লিখে ২০০ জনের উপরে। এমনকি রাতে কার আগে কে রিপোর্ট দেখাবে সেটা নিয়ে রোগীদের মধ্যে মাঝে মাঝে ঝগড়াও হয়। অধিক সিরিয়াল লেখার কারনে সকল রোগীদের দেখতে হিমসিম খাচ্ছে ডাক্তাররা এবং বিরম্বনায় পরছে দুর দুরান্তের রোগীরা। সিরিয়াল বিরম্বনার এমন দূর্ভোগের অবসান চাচ্ছেন সকল রোগী।

About arthonitee

Check Also

আমরা কুমিল্লার সন্তান হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপের পক্ষ থেকে সহায়তা

আজ কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার সিন্ধুয়া চৌমুহনীতে আমরা কুমিল্লার সন্তান হোয়াটস অ্যাপে গ্রুপের পক্ষ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *