ওবায়দুল কাদের প্রতিদিন নতুন তথ্য আবিষ্কার করেন: ফারুক

ওবায়দুল কাদের প্রতিদিন নতুন তথ্য আবিষ্কার করেন: ফারুক

নিজস্ব প্রতিবেদক
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের একেক দিন একেকটা তথ্য আবিষ্কার করেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক। ফারুক বলেন, সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলা শুরু করেছে জনগণ। প্রধানমন্ত্রী ভারত গেলেন এক সপ্তাহে দুবার। কি মধুর সম্পর্ক, কি প্রেম-প্রীতি, ভালোবাসা। আম, লিচু, ইলিশ পাঠান, কিন্তু গিয়ে ফেরত আসেন খালি হাতে। পানির ন্যায্য হিস্যা আনতে পারেন না। বরং নতুন করে বুকের ওপর দিয়ে রেলপথ নির্মাণের সমঝোতা চুক্তি সই করেন। মঙ্গলবার সকালে প্রেস ক্লাবের সামনে ভারতের সঙ্গে অবৈধ চুক্তি, দুর্নীতি, দেশকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে আয়োজিত এক অবস্থান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। গণতন্ত্র ফোরাম নামের একটি সংগঠনের পক্ষ থেকে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।
ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, গান গায় শিল্পী, তলে তলে ব্যথা। আসলেই সত্যি আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের তলে ব্যথা আছে। তিনি একেক দিন একেকটা নতুন কথা আবিষ্কার করেন। আবিষ্কার করলেন, আজকে পত্রিকায় দেখলাম, মমতার জন্য নাকি আমরা তিস্তার পানিবণ্টন পাচ্ছি না। হায়রে আমাদের কপাল এত মন্দ। এ মন্দের পেছনে আওয়ামী লীগ। আবার নতুন করে সমঝোতা সইয়ের নামে দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব খর্ব হওয়ার পথে। দেশের স্বাধীনতা অর্জন করেছি আমরা দিল্লির দাসত্ব করার জন্য নয়?
ফারুক বলেন, সরকার আজিজ, বেনজীর, আসাদুজ্জামান মিয়া, মতিউর তৈরি করেছে। নতুন করে ফয়সাল তৈরি করেছে। এক এক কাণ্ড তৈরি করে মানুষের দৃষ্টি অন্যদিকে সরানোর জন্য ছাগলকাণ্ড করেছেন। এসব কাণ্ডে কোনো কাজ হবে না। দেশের মানুষ শহীদ জিয়ার দল, তারেক রহমানের নেতৃত্বে আজ অত্যন্ত সুদৃঢ় অবস্থায়। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার বছরে ৯২ হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করে। আর হিন্দুস্তানের সঙ্গে অসম চুক্তি করে দেশের সার্বভৌমত্বের প্রতি হুমকি তৈরি করবেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের একজন সৈনিক, একজন কর্মী থাকতেও আমরা তা হতে দেবো না।
গণতন্ত্র ফোরামের সভাপতি বিপি ইব্রাহিমের সভাপতিত্বে ও কৃষক দলের ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পবিষয়ক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল নাঈমের সঞ্চালনায় অবস্থান কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব আব্দুস সালাম আজাদ, বিএনপির শিশুবিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আ ক ম মোজাম্মেল প্রমুখ।

Share This Post

আরও খবর