প্রচ্ছদ / জাতীয় / মসজিদে গিয়ে সাত ইয়াবা ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ!

মসজিদে গিয়ে সাত ইয়াবা ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ!

চট্টগ্রাম মহানগরে মাদকবিরোধী অভিযানের মাঝেই মসজিদে গিয়ে মুসল্লিদের সামনে আত্মসমর্পণ করেছেন ৭ ইয়াবা ব্যবসায়ী।

শুক্রবার (১৭ মে) জুমার নামাজের আগে নগরের বাকলিয়া এলাকার বজ্রঘোনা মাদানি মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।

প্রসঙ্গত, গত ১১ মে (শনিবার) রাতে বাকলিয়ার এই মাদানি মসজিদ এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীদের গুলিতে এক গৃহবধূ নিহত হন। পরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন ঘাতকও।

পুলিশ জানায় আত্মসমর্পণ করা ইয়াবা ব্যবসায়ীরা হলেন- মো. আবু বক্কর (৪৫), মো. আব্দুল মাবুদ (৩৮), মো. শাহজাহান (৪৫), মো. শামসু (৪০), এসকান্দর মির্জা (৫৬), ওছিউর রহমান (৪৫) ও মো. ইছাহাক (৫০)।

বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নেজাম জানান, জুমার নামাজের আগে বজ্রঘোনা এলাকার মাদানি মসজিদে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পণ করার আহ্বান জানানো হয়। এসময় সাতজন ইয়াবা ব্যবসায়ী আত্মসমর্পণ করে নতুন জীবন শুরুর ওয়াদা করেন।

এলাকাবাসীরা জানান, দীর্ঘদিন যাবত বাকলিয়া এলাকা মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীদের স্বর্গরাজ্য বলে বিবেচিত। সম্প্রতি পুলিশি তৎপরতায় তারা অনেকটা কোনঠাসা। আজ জুমার নামাজের আগে খুতবা চলাকালে পুলিশের অনুরোধে মসজিদের খতিব ইয়াবা ব্যবসায়ীদের আত্মসমর্পণ করার আহ্বান জানালে প্রথমে ৪ ইয়াবা ব্যবসায়ী স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করেন।

তাদের আত্মসমর্পণের পর বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন দাঁড়িয়ে মুসল্লিদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন। বক্তব্যে তিনি আবারও মাদক ব্যবসায়ীদের স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণের আহ্বান জানান। ওসির বক্তব্যের পরে আরও তিন মাদক ব্যবসায়ী আত্মসমর্পণের ঘোষণা দেন।

থানা সূত্র জানায়, চলতি মাসের ২ মে থেকে নগরের বাকলিয়া থানার বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চলছে। গত ১৫ দিনে ৬৪টি মামলায় ৮৪ জনকে আটক করে আদালতে সোর্পদ করেছে বাকলিয়া থানা পুলিশ।

About arthonitee

Check Also

এফআর টাওয়ার নির্মাণে ত্রুটি, তদন্ত প্রতিবেদনে দোষী ৬৭ জন

অগ্নি দুর্ঘটনায় পড়া বনানীর এফআর টাওয়ারের নকশা অনুমোদন এবং নির্মাণ কাজের ত্রুটির জন্য গৃহায়ন ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *