প্রচ্ছদ / মিডিয়া কর্নার / এ আর কিডস হচ্ছে সরকার এবং শিশু কিশোরের মাঝে সেতুবন্ধনের নাম: আরিফ রহমান শিবলী

এ আর কিডস হচ্ছে সরকার এবং শিশু কিশোরের মাঝে সেতুবন্ধনের নাম: আরিফ রহমান শিবলী

বাংলাদেশ ও দক্ষিন এশিয়ার শিশু গণমাধ্যম নিয়ে কাজ করতে দ্রুত শুরু হচ্ছে এ আর কিডস মিডিয়ার অফিসিয়াল যাত্রা।শিশু কিশোর এবং অভিভাবক মহলে তুমুল সাড়া ফেলে “এ আর কিডস” শুরু থেকে ই।শুধু শিশু সাংবাদিকতা,সংবাদ উপস্থাপনা শিখানো ই নয় পাশাপাশি এখন থেকে ফটোগ্রাফি, ক্যামেরা চালানো থেকে প্রডাকশন বানানো সবকিছু থাকছে এমনটাই আজ সকালে জানান গণমাধ্যমকে” এ আর কিডস “এর পরিচালক রওশন জাহান চেতনা। এই জন্য ই আমাদের সবকিছু গুছিয়ে নিতে এতো সময় লাগছে বলে জানান কিডস মিডিয়ার এই পরিচালক।তিনি আরও বলেন,সচেতন অভিভাবক মহল সরকার,শিক্ষক ছাড়াও শিশু কিশোরদের আগ্রহ ভালোবাসা বিশ্বাস জনপ্রিয়তার পাশাপাশি আমাদের দায়িত্ববোধ কে অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে।এইদিকে “এ আর কিডস” এর প্রধান নির্বাহী আরিফ রহমান জানিয়েছেন,কোর্সগুলো আমরা পরিচালনা করলেও বাংলাদেশের টিভি চ্যানেল,অনলাইন সংবাদ,জাতীয় পত্রিকার উচ্চপদস্থ’গন ক্লাস নিবেন।যেহেতু কিডস মিডিয়া এবং মূলধারার মিডিয়ার মাঝে ব্যাপক পার্থক্য আছে এবং “এ আর কিডস” যেহেতু এখন থেকে অস্ট্রেলিয়ান চাইল্ড মিডিয়া এজেন্সির সাথে যৌথভাবে কাজ করবে! তাই সকল কোর্সগুলোতে এখন আনা হচ্ছে অনেক পরিবর্তন। ফটোগ্রাফি কোর্স আলোচিত ফটোগ্রাফার শহিদুল আলম থাকছেন এমন প্রশ্নে কিডস মিডিয়া প্রধান বলেন,আমরা দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সকল মিডিয়া এক্সপার্ট দের শ্রদ্ধা করি। যারা শিশুদের বুঝাতে সক্ষম হবেন এমন এক্সপার্টগন থাকছেন।আর ” এ আর কিডস” সরকার এবং শিশু কিশোরদের মধ্যে সেতুবন্ধন গড়তে ই এর যাত্রা শুরু করে পরীক্ষামূলক ভাবে বাংলাদেশে একবছর পরীক্ষামূলক ভাবে কাজ করার পর আমরা অফিসিয়াল যাত্রা শুরু করি চার বছর আগে । আমরা আশা করি বাংলাদেশ ও দক্ষিন এশীয় অঞ্চলের সরকারের সাথে শিশু কিশোরদের সেতুবন্ধন গড়তে আমাদের নিজস্ব অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে সফল হবো। আর আমাদের কিডস মিডিয়ার সকল কোর্সগুলোতে এইবার থেকে ট্রাফিক আইন শিখাতে ও মাদক থেকে ছোট থেকে দূরে রাখতে ক্লাস নিবেন পুলিশ ও চিকিৎসকদের একটি এক্সপার্ট টিম নিশ্চিত করেন দক্ষিন এশীয় অঞ্চলের আলোচিত ক্ষুদে গণমাধ্যম এক্সপার্ট মিঃ আরিফ রহমান। দক্ষিন এশীয় অঞ্চলের শিশুদের সবচেয়ে বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে মাদক। যেটা মোকাবিলায় শিশু সাংবাদিকদের প্রস্তুত করবো আমরা,যারা মুখপাত্র হয়ে কাজ করবেন লক্ষ লক্ষ শিশু কিশোরের। “এ আর কিডস ” এর ব্রাঞ্চ নেই আর আপাতত আমাদের এমন চিন্তা নেই বলেও এই প্রতিবেককে নিশ্চিত করেন কিডস মিডিয়ার পরিচালক রওশন চেতনা।অনেক অভিভাবক আমাদের কে চার বছর বয়স থেকে ই যেন কিডস মিডিয়ায় নিয়ে কাজ করি এরজন্য অনুরোধ করেছেন,আমরা আনন্দের সাথে জানাচ্ছি অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড এর চাইল্ড মিডিয়া এক্সপার্টদের সহায়তা নিয়ে এনিমেটেড ছোট ছোট কিছু
কোর্স চালু করবো। যেহেতু ইউরোপ,অস্ট্রেলিয়ার বাচ্চাদের সাথে দক্ষিন এশীয় বাচ্চাদের অনেক পার্থক্য
শারীরিক,মানসিক তাই পরীক্ষামূলক ভাবে এইগুলো আমরা শুরু করবো বলেও জানান কিডস মিডিয়ার পরিচালক রওশন চেতনা। এই মাসের শেষদিকে লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠানে আমরা রাজনীতিবিদ,সাংবাদিক,অভিনেতা,অভিনেত্রী সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের আশা প্রত্যাশার কথা শুনবো ।আর এ আর কিডস মিডিয়া দক্ষিন এশীয় অঞ্চলের শিশুদের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়তেও সহায়তা করবে এমনটাই আশার কথা শোনালেন,আরিফ রহমান শিবলী। সবশেষ এই প্রতিবেদককে কিডস মিডিয়ার প্রধান নির্বাহী বলেন, সরকার অনেক পদক্ষেপ নেয় শিক্ষা,স্বাস্থ্য,খেলাধুলা সহ অনেক জায়গায় যেটা জানেনা ৯৬% শিশু কিশোর। আমরা নিজস্ব পরিকল্পনা, বাইরের এক্সপার্ট দের সহায়তা নিয়ে অনলাইন পত্রিকা, টিভি অনুষ্ঠান,
পত্রিকার মাধ্যমে সরকার এবং শিশু কিশোরদের নিয়ে আসবো খুব নিকটে। আর যেহেতু কিডস মিডিয়া নিয়ে আমার দীর্ঘদিনের গবেষণা ,আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষন আছে এবং অস্ট্রেলিয়ান চাইল্ড মিডিয়া এজেন্সির সহায়তা রয়েছে এইটা করা সহজ হবে বলে আরও জানান কিডস মিডিয়া প্রধান।

About arthonitee

Check Also

১৭ বছর ধরে নিঃস্বার্থভাবে মানব সেবা করে যাচ্ছেন সিলেটের শিব্বির

এমনই একজন মানুষ যিনি কোন স্বার্থ ছাড়াই মানবসেবা চালিয়ে যাচ্ছেন। আর এই মানবসেবার ১৭ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *