প্রচ্ছদ / সম্পাদকীয় / স্পষ্ট নয় এমন জয়-পরাজয়ের মিশ্রণই জীবন

স্পষ্ট নয় এমন জয়-পরাজয়ের মিশ্রণই জীবন

এহছান খান পাঠান:

আমরা তো যে কোনও বিষয়েই অতি সহজেই মন্তব্য করে থাকি । বিচারক অর্থাৎ যার যাতে রায় দেয়ার ক্ষমতা থাকে তাকে তুলাদন্ডের ধাধাটা বুঝতে হবে । পাল্লার এক প্রান্তে থাকে প্রত্যাশা অন্য প্রান্তে থাকে আশঙ্কা । আশঙ্কার দিকটা ভারি হলে আশা রূপান্তরিত হয় নির্বাক আতঙ্কে । প্রত্যাশার দিকটা ভারি হলেই শুধু আমরা বিজয় উল্লাসে মগ্ন হতে চাই । আসলে জীবন হচ্ছে সমাধান হয়নি এমন সমস্যা, সমাধান হয়েছে এমন সমস্যা, দ্ব্যর্থবোধক সাফল্য এবং স্পষ্ট নয় এমন জয়-পরাজয়ের মিশ্রণ । দ্ব্যার্থবাধক সাফল্য এজন্য ই বলছি সব সফলতাই যে সফলতা তা কিন্তু একেবারেই সত্য নয় ।
যে বিষয়টি অতি জরুরি তা হচ্ছে জীবনকে মোকাবেলা করা । কারন আমরা বাস্তবতার বিশ্লেষণ করি, কারন খুজি, পরিনতি খুজি কিন্তু ব্যর্থতার পুনরাবৃত্তি যাতে না হয় এমন অভিজ্ঞতা আহরনের চেষ্টা কম করি । আশা, স্বপ্ন, লক্ষ্য সব যখন ভেঙ্গে পড়ে সেই ধ্বংসস্তুপের মধ্যেই কিন্তু লুকিয়ে থাকে সুবর্ণ সুযোগ । এটা আমরা বিশ্বাস করতে চাই না ।

আসলে নিজেকে কখনো তুচ্ছ বা অসহায় মনে না করাই উচিত । আমি কিছু করতে পারব না বা আমাকে দিয়ে কিছু হবে না বিষয়টি ভাবা অবাস্তব । আল্লাহ তায়ালা প্রত্যেকটি জীবনকে সৃষ্টি করেছেন কোন না কোনও নির্দিষ্ট কাজ করার জন্য । তার ইচ্ছা বা তার আনুকূল্য ই আমাদেরকে সেই পুর্ব নির্দিষ্ট কাজ সম্পাদনে সাহায্য করবে । পৃথিবীতে তারাই বেশি সফলতা লাভ করে যারা বুঝতে পারে তাদের দিয়ে কি হবে?
মানুষ তার স্বপ্নের চেয়েও বড় । মানুষ যা ভাবে তা করতে পারবেই যদি তার লক্ষ্য অটুট থাকে এবং তার ভাবনা বাস্তবায়নে সদাচেষ্ট থাকে । তবে তাকে অবশ্যই তার সীমা, ক্ষমতার সাথে সমন্বয় করেই তাকে ভাবতে হবে । অলীক কোন চাওয়া বা ভাবনা তো অলৌকিকভাবে ছাড়া পাওয়া যাবে না । আর প্রতিযোগিতার ভয়ে ভীত হওয়াটাও কিন্তু একদমই ঠিক না । লাখ লাখ শুক্রাণুর প্রতিযোগিতায় সফল হয় একটি, তৈরি হয় ভ্রুন, জন্ম নেয় মানব শিশু । সুতারাং পৃথিবীতে আসার আগেই তো পুরোদমে প্রতিযোগিতা করে ই আসতে হয়েছে । তবে বর্তমান সমাজে নেতিবাচক যে প্রবনতা লক্ষ্য করা যায় তাহলো প্রতিযোগীদেরকেই আমরা প্রতিপক্ষ ভাবতে থাকি । বিষয়টি ঠিক নয়, কারন আমার ভাগ্যে যেটা আছে সেটা তো কেউ খন্ডাতে পারবে না । সুতারাং এগিয়ে যেতে হবে নিজের উপরে আস্থা রেখে, লক্ষ্য অটুট রেখে । তাহলে ই সফলতা আসবে । আল্লাহ তায়ালা কারো কর্ম বা পরিশ্রমকে ব্যর্থ করেন না ।

(এহছান খান পাঠান, বার্তা সম্পাদক, দৈনিক অর্থনীতির কাগজ)

About arthonitee

Check Also

বেঁচে থাকলে কিভাবে কত ইনকাম করব আর মরলে কত ক্ষতিপূরণ পাব?

এহছান খান পাঠান: সোস্যাল মিডিয়ায় একের পর এক পোড়া চকবাজার ট্রাজেডির ধ্বংসস্তূপের ছবি। মনে হয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *