প্রচ্ছদ / ভোগান্তি / আদালত চত্বরে ব্যাপক নিরাপত্তা, জায়গায় জায়গায় তল্লাশি

আদালত চত্বরে ব্যাপক নিরাপত্তা, জায়গায় জায়গায় তল্লাশি

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারের বিশেষ আদালতজুড়ে কড়া নিরাপত্তায় অবস্থান নিয়েছে পুলিশ। আজ দুপুরে এ মামলার রায় ঘোষণার কথা রয়েছে।

রায়কে কেন্দ্র করে পুরো নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা পুরাতন কারাগার এলাকা। কঠোর নিরাপত্তায় নিয়োজিত রয়েছেন পুলিশ ও কারারক্ষীরা। বন্ধ রাখা হয়েছে কারাগারসংলগ্ন চারটি সড়ক। প্রস্তুত রাখা হয়েছে ফায়ার সার্ভিসের একটি পানিভর্তি গাড়ি।
সরেজমিনে কারাগার এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, রায়কে কেন্দ্র করে পুরান ঢাকা প্রবেশের মুখ চানখারপুল ও বকশীবাজার এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন ও কাঁটাতারের ব্যারিকেড রাখা হয়েছে। কারাগারের চারপাশ দিয়ে যানচলাচল বন্ধ রেখেছে পুলিশ। পায়ে হেঁটে লোকজন চলাচল করতে পারছেন। তবে যারা এই সড়কের ভেতরে যাচ্ছেন তাদের প্রত্যেকের শরীর এবং ব্যাগ তল্লাশি করা হচ্ছে। চকবাজার থানা পুলিশের সদস্যরা কারাগারের মূল ফটকের বাইরে সশস্ত্র অবস্থান নিয়েছেন।

পুলিশের লালবাগ বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) ইব্রাহীম খান  বলেন, ‘আদালত চত্বরে পোশাকধারী পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা পুলিশ ও সাদা পোশাকধারী পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে। কাউকে সন্দেহ হলে তাকেই তল্লাশি করা হবে।’

উল্লেখ্য, সম্প্রতি নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রশাসনিক ভবনের ৭ নম্বর কক্ষকে অস্থায়ী আদালত হিসেবে ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করেছে সরকার। এর আগে আইন ও বিচার বিভাগ থেকে এ-সংক্রান্ত আদেশ জারি করা হয়।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে কারা আদালতে বিচার চলবে- এ সংক্রান্ত আদেশের বিরুদ্ধে করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে সাত সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ সোমবার এ আদেশ দেন।

এ আদেশের ফলে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আজকে রায় ঘোষণা করতে আর কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

About arthonitee

Check Also

প্রবাসী শ্রমিকরা বেশি মারা যাচ্ছেন হৃদরোগ-স্ট্রোকে

তুহিন আহমদ জহির (কাতার থেকে): সৌদি আরবের দাম্মামে একটি কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জাকির হোসেন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *