প্রচ্ছদ / মতামত / খনিজ তেল (base oil) এর প্রকারভেদ

খনিজ তেল (base oil) এর প্রকারভেদ

ইঞ্জি. জয়নাল আবেদিন:

২০১৭ সালে, সারা পৃথিবী ব্যাপী লুব্রিকেন্টস এর চাহিদা ছিল ৩৭.৫ মিলিয়ন মেট্রিকটন। মোটরযানেই উল্লেখ্য যোগ্য পরিমানে ব্যবহৃত হয়। এ ছাড়াও শিল্পকারখানা, নৌযানে ও ধাতব কাজেও বড় ধরনের লুব্রিকেন্টস এর ভোক্তা রয়েছে। তরল লুব্রিকেন্টস গুলি বাজারে আধিপত্য বিস্তার করে রেখেছে। এর পরে কঠিন ও বায়বীয় বা গ্যাস ভিত্তিক লুব্রিকেন্টস গুলি রয়েছে।

লুব্রিকেন্টস সাধারণত বেস অয়েল বা খনিজ তেলের অংশ বিশিষ্ট এবং বিভিন্ন ধরনের Additives ব্যবহারে ফলে বিভিন্ন ধরনের নমনীয় বা কমনীয় (Desirable) বৈশিষ্ট সরবরাহ করে। যদিও সাধারণ লুব্রিকেন্টস গুলো একই ধরনের খনিজ তেলের ভিত্তি করে তৈরী করা হয়, তবে খনিজ তেলের মিশ্রণ বা মিশ্রিত খনিজ তেল প্রয়োজনীয় কর্মক্ষমতা অনুযায়ী বা প্রয়োজনীয়তা পুরন করতে ব্যবহৃত হয়।

খনিজ তেল (Mineral oil) : খনিজ তেল শব্দটি কুর্ড অয়েল (Crude oil) থেকে উদভৃত যা বেজ অয়েল (Base oil) বলতে বোঝায়। আমেরিকান পেট্রোলিয়াম ইন্সটিটিউট (API) বিভিন্ন ধরনের লুব্রিকেন্টস খনিজ তেলের (Base oil) নাম করন করেছে বা বিভিন্ন ভাবে চিহ্নিত করেছে।

গ্রুপ ১ (Group I) : সেচুরেটস <৯০%, সালফার >.০৩% SAE (society of automotive engineers) VI (viscosity index) ৮০-১২০ থাকে। সাধারণত solvent extraction, catalytic dewaxing এবং hydro-finishing পদ্ধতিরর মাধ্যমে উৎপাদিত/তৈরী করা হয়। সাধারণত গ্রুপ ১ (Group I) খনিজ তেল (base oil) ১৫০ এস এন (150 SN), ৫০০ এস এন (500 SN) (150 SB)।

গ্রুপ ২ (Group II) : সেচুরেটস >৯০%, সালফার <.০৩% SAE (society of automotive engineers) VI (viscosity index) ৮০-১২০ থাকে। সাধারণত catalytic dewaxing এবং hydrocracking পদ্ধতিরর মাধ্যমে উৎপাদিত/তৈরী করা হয়। সাধারণত গ্রুপ ২ (Group II) খনিজ তেল (base oil) ১৫০ এন (150 N), ৫০০ এন (500 N) ৭৫০ এন (750 N)৯০০ এন ( 900 N)। গ্রুপ ২ (Group II) খনিজ তেল এ উচ্চতর anti- oxidant বৈশিষ্ট রয়েছে। water-white রঙ এর হয়ে থাকে।

গ্রুপ ৩ (Group III) : সেচুরেটস >৯০%, সালফার <.০৩% SAE (society of automotive engineers) VI (viscosity index) ১২০ এর উপরে থাকে। সাধারণত isohydromerization পদ্ধতিরর মাধ্যমে বিশষে ভাবে উৎপাদিত/তৈরী করা হয়। এছারাও খনিজ তেল (base oil) থেকে dewaxin প্রক্রিয়ারর মাধ্যমেও উৎপাদিত করা হয়। । সাধারণত গ্রুপ ৩ (Group III) খনিজ তেল SH 4, SH 5, SH 6.
গ্রুপ ৪ (group IV) : শুধু মাত্র পলিআলফাঅলেফিন (PolyAlphaOlefins) PAO।

গ্রুপ ৪ (group IV)পুর্ন সিন্থেটিক অয়েল। (Fully synthetic oil)।

গ্রুপ ৫ (group V) : গ্রুপ ৫ (group V) রাসায়নিক ভাবে তৈরী। সিলিকন (Silicon), ফসফেট এসটার (Phosphate ester), পলি আলকাইলিন গ্লাইকোল (Polyalkylene glycol) PAG, পলিঅলেইস্টার (Polyolester), বায়লুবস (Biolubs) প্রভৃতির সমন্নয়ে গঠিত। অন্যান্য তেলের বৈশিষ্ট বৃদ্ধির জন্য এই তেল গ্রুপ ৫ (group V) মিশ্রিত করা হয়।

এছাড়াও প্রচলিত গঠন অনুযায়ীর উপর নির্ভর করে তিনটি বিভাগে ভাগ বা শ্রেণীবদ্ধ করা যায়।

১. প্যারাফিনিক (Paraffinic)
২. ন্যাপথেনিক (Naphthenic)
৩. এ্যারোমেটিক (Aromatic)

About arthonitee

Check Also

চিকিৎসায় আস্থার সংকট ও ভুল চিকিৎসা

  ডা. ছায়েদুল হক  জীবন বাঁচাতে মানুষ সৃষ্টিলগ্ন থেকে একের পর এক নতুন নতুন চ্যালেঞ্জের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *