প্রচ্ছদ / রাজনীতি / ১৫ আগস্ট – ৩ নভেম্বর হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের খলনায়ক ছিলেন জিয়াউর রহমান – তথ্য প্রতিমন্ত্রী।

১৫ আগস্ট – ৩ নভেম্বর হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের খলনায়ক ছিলেন জিয়াউর রহমান – তথ্য প্রতিমন্ত্রী।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট থেকে শুরু করে ৩ নভেম্বর জেলহত্যা এবং ৭ নভেম্বর মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের খলনায়ক ছিলেন জিয়াউর রহমান। আজ জাতীয় প্রেস ক্লাবের মানিক মিয়া হলে সম্প্রতি বাংলাদেশ কর্তৃক আয়োজিত নভেম্বর ১৯৭৫ : ষড়যন্ত্র, রক্তাক্ত বাংলাদেশ ও প্রতিক্রিয়াশীলতা বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্ব এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতায়, যে পাকিস্তানি প্রেতাত্মা মহল বিশ্বাস করেনি সেই ঘাতক দালালেরা খুনি জিয়ার নেতৃত্বে ৭৫ থেকে পরর্বতী সকল বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে ছিল।

পৃথিবীর সব মানুষই জানেন, জেলখানা হলো যে কোনো কয়েদীর জন্য সবচেয়ে নিরাপদ স্থান। কিন্তু সেই নিরাপদ স্থানেই খন্দকার মোশতাক ও পর্দার অন্তরালে জিয়াউর রহমানের ইঙ্গিতে জঘন্যতম যে ঘটনা ঘটে তা হল জেলখানার অভ্যন্তরে ৪ জন জাতীয় নেতার নির্মম হত্যাকান্ড। পৃথিবীর কোনো সভ্য সমাজে এমন জঘন্য কর্মকান্ডের নজীর নেই বলে তথ্য প্রতিমন্ত্রী বিশ্বাস করেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও একাত্তরের চেতনাকে ধ্বংস করার জন্য ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে এবং ৩ নভেম্বর জাতীয় ৪ নেতাকে স্বাধীনতা বিরোধী, প্রতিক্রিয়াশীল দেশী ও বিদেশী চক্র হত্যা করে। ৭৫’র থেকে পরর্বতীতে সকল হত্যাকান্ডে পর্দার আড়ালে নেপথ্যে যারা ছিল সময় এসেছে তাদের মুখোশ উন্মোচন করার।

কেবিনেট মিটিংয়ে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে এবং ৭৫ র ৩ নভেম্বর জাতীয় ৪ নেতার হত্যার পিছনে যারা জড়িত ছিল, কমিশন গঠন করে তাদেরকে দ্রুত বিচারের আওতায় নিয়ে আসার ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে বলে আশস্ত করেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী।

বঙ্গবন্ধু কন্যা বিশ্বনেতা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। স্বাধীনতা বিরোধী মহলের সকল ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে জাতির পিতার হত্যার, যুদ্ধাপরাধীর বিচার এই বাংলার মাটিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা বাস্তবায়ন করেছেন, এমনিভাবে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে এবং জাতীয় ৪ নেতার হত্যার পিছনে ষড়যন্ত্রকারীদের তালিকা তৈরি করে মরোণত্তর বিচার করা হবে বলে প্রতিমন্ত্রী বলেন
এই আলোচনাটির মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাংবাদিক জায়েদুল হক পিন্টু, সঞ্চালনা করেন অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতুব স্বপ্নীল এবং সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট নাট্যজন পীযুষ বন্দ্যোপাধ্যায়।

About arthonitee

Check Also

বাঙালি ও বাংলাদেশের অস্তিত্বের প্রতিচ্ছবি বঙ্গবন্ধু – ডা.মো. মুরাদ হাসান এমপি

শ্রাবণ প্রকাশনীর ‘ শ্রাবণ বইগাড়ি ‘ কর্তৃক আয়োজিত পরিবাগ সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদযাপন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *